সোমবার, ২৭ মে ২০১৯ ইং, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ২২ রমযান ১৪৪০ হিজরী

You Are Here: Home » ফটো গ্যালারী » সংসদে যোগ দেয়ায় বিএনপির এমপিদের স্বাগত জানালো প্রধানমন্ত্রী

সংসদে যোগ দেয়ায় বিএনপির এমপিদের স্বাগত জানালো প্রধানমন্ত্রী

সংসদ প্রতিবেদকঃ

ফাইল ফটো

সদ্য সংসদে যোগ দেয়া বিএনপির ৫ সংসদ সদস্যকে স্বাগত জানিয়েছেন সংসদ নেতা ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

মঙ্গলবার (৩০ এপ্রিল) জাতীয় সংসদের সংক্ষিপ্ত দ্বিতীয় অধিবেশনের শেষ দিনে সমাপনী বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। প্রধানমন্ত্রী বলেন, বিএনপির ৫ জন সংসদ সদস্যকে সংসদে যোগ দেয়ায় আমি তাদের স্বাগত জানাই।এছাড়া সংসদে বিরোধীদলকে স্বাগত জানিয়ে তিনি বলেন, আমরা চাই সংসদটা কার্যকর হউক।

এদিকে বিএনপি সংসদে যোগ দেয়ায় জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমীন চৌধুরীও তাদের স্বাগত জানান।

বিরোধী দলীয় উপনেতা রওশন এরশাদের চাকরির বয়স বাড়ানো প্রসঙ্গে উত্থাপিত কথার জবাবে প্রধানমন্ত্রী যুক্তি তুলে ধরে বলেন, ‘৩৫ বছরে যদি তারা পিএসসি পরীক্ষা দেয়, ট্রেনিং নিয়ে চাকরিতে ঢুকতে ঢুকতে ৩৮ বছর হবে। যদি কেউ ৩৮ বছর চাকরিতে ঢুকে, তার সাথে সাথে যদি ২২-২৩ বছরে ওই একই চাকরিতে ঢুকে, তাহলে কত বছর পার্থক্যে চাকরিতে ঢুকবে।’

তিনি বলেন, ‘যারা অবসরে যাচ্ছেন তাদের কেউ ২৪ বছরেই চাকরিতে ঢুকেছেন। আমরা চাকরিতে বয়স বৃদ্ধি করেছি। আমরা ৫৭ থেকে ৫৯ করেছি। ৩৮ বছরে যে ঢুকবে সে ২২-২৩ বছর চাকরি করতে পারবে। সে পূর্ণ পেনশন পাবে না। আর মানুষের সৃজনশীলতা ২৪-২৫ বছর বয়সে বেশি থাকে। আর ২১ বছরে মানুষ পূর্ণতা পায়। কাজেই যারা ৩৮ বছরে চাকরি ঢুকবে তাদের সেই সময়টা কোথায় যাবে। মূল্যবান সময়টা কি করবে? ৮ বছর চলে যাবে, বৃদ্ধ বলব না। তারা কি কাজ করবে। এরপর তারা চাকরিতে বয়স বাড়ানোর কথা বলবে, বয়স বাড়ালেতো নতুন চাকরি কেউ পাবে না। কেউ অবসরে যাবে না, পদ সৃষ্টি হবে না। শুধু দাবি তুললেই হয় না।

শেয়ারবাজার নিয়ন্ত্রণে নেই- আগের দিন্সংসদে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের এমন বক্তব্যের পর  সংসদে বিনিয়োগকারীদের আশস্ত করে সংসদ নেতা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ‘শেয়ারবাজারে অনেক ঘটনা ঘটে গেছে অতীতে। এটা যেনো স্থিতিশীল থাকে তার জন্য অনেক ব্যবস্থা নিয়েছি। কাজেই শেয়ারবাজার নিয়ে খুব বেশি শঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই।’

তিনি বলেন, ‘শেয়ারবাজারে যারা যাচ্ছেন, তাদের জানা উচিত, লাভ যেমন হবে লোকশানও তেমন হবে। যেকোনো সময় লাভ হতে পারে, যেকোনো সময় লোকসান হতে পারে। লাভ করলেই খুশি আর লোকসান করলেই সরকারের দোষ, এটাতো ঠিক না। সরকারের পক্ষ থেকে ব্যবস্থাপনার যা যা করা দরকার, সেটা কিস্তু আমরা করে যাচ্ছি। হটাৎ উপরে না উঠুক, আবার পরে না যাক। এখানে কেউ যদি গেম খেলতে চায়, তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে, হবে।’

Tweet about this on TwitterShare on Google+Print this pageShare on LinkedInShare on Tumblr





© 2014 Powered By Sangshadgallery24.com

Scroll to top