সোমবার, ২৭ মে ২০১৯ ইং, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ২২ রমযান ১৪৪০ হিজরী

You Are Here: Home » এক্সক্লুসিভ » ফণী: আবহাওয়া অফিসের কাজ অনুকরণীয় বললো যুক্তরাষ্ট্র

ফণী: আবহাওয়া অফিসের কাজ অনুকরণীয় বললো যুক্তরাষ্ট্র

নিউজ ডেস্ক:

অতিপ্রবল ঘূর্ণিঝড় ‘ফণী’ মোকাবিলায় বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তরের পূর্বাভাস ও এক্ষেত্রে সরকারের প্রস্তুতির কাজ অন্য দেশের জন্য অনুকরণীয় বলে জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় আবহাওয়া অফিস।

বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তরের (বিএমডি) পরিচালক সামছুদ্দিন আহমেদকে এক চিঠিতে ধন্যবাদ জানিয়ে অদূর ভবিষ্যতে সহযোগিতার আশ্বাস পুনর্ব্যক্ত করেছে যুক্তরাষ্ট্রের ‘ন্যাশনাল ওয়েদার সার্ভিস’।

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় ‘ফণী’ ভারতের উড়িষ্যায় ১৮০ কিলোমিটার বেগে আঘাত করেছিল। এতে প্রাণহানিসহ ঘরবাড়ি ও অন্যান্য খাতে বেশ ক্ষয়ক্ষতি হয়।

ঘূর্ণিঝড়টি দুর্বল হয়ে পরদিন সাধারণ ঘূর্ণিঝড় রূপে ৫ মে বাংলাদেশের খুলনা-সাতক্ষীরা অঞ্চল দিয়ে আঘাত হানে। এসময় বাতাসের গতিবেগ ছিল বরিশালে সর্বোচ্চ ৭৪ কিলোমিটার। সবশেষ হিসাবে, ঘূর্ণিঝড়টির আঘাতে পাঁচজনের মৃত্যু ও ৬৩ জন আহতসহ মোট ৫৩৬ কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে।

ফণীর আঘাত হানার আশঙ্কায় গত ২ মে মোংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরকে ৭ নম্বর, চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দরকে ৬ নম্বর এবং কক্সবাজার সমুদ্রবন্দরকে ৪ নম্বর স্থানীয় হুঁশিয়ারি সংকেত জারি করা হয়েছিল।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের পূর্বাভাসে মেনে পূর্বপ্রস্তুতি নেওয়ায় ক্ষয়ক্ষতি অনেক কম হয়েছে বলে সরকারের পক্ষ থেকে দাবি করা হচ্ছে। এরই মধ্যে আধুনিক প্রযুক্তিতে ভরা যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় আবহাওয়া সেবা সংস্থা থেকে এসেছে প্রশংসা।

বৃহস্পতিবার (৯ মে) সচিবালয়ে এক অনুষ্ঠানে যুক্তরাষ্ট্রের আবহাওয়া অফিসের বার্তাটি জানান দুর্যোগ মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব শাহ কামাল।

তিনি বলেন, একটি মেসেজ আছে। মেসেজটি হলো, আমেরিকান ন্যাশনাল ওয়েদার সার্ভিস থেকে আমাদের আবহাওয়া অধিদপ্তরের পরিচালককে বলেছে, বাংলাদেশ যে অনুকরণীয় দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে এটা অন্য দেশের জন্য অনুকরণীয় হতে পারে এবং সব দেশকে এটা জানানোর জন্য কীভাবে আমরা এই ফণী মোকাবিলার কাজ করেছি, এ বিষয়ে তারা মেসেজ দিয়েছে।

‘তারা বলেছে বাংলাদেশ যে এ ধরনের একটি জলোচ্ছ্বাস ও ঘূর্ণিঝড়কে মোকাবিলা করতে সক্ষম হয়েছে, এই প্রসেসটা ও কীভাবে আমরা সমন্বিত প্রচেষ্টা নিয়েছি- এটা অন্য দেশের জন্য শিক্ষণীয় ও অনুকরণীয় হতে পারে।’

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী এনামুর রহমান বলেন, আপনারা দেখেছেন দুর্যোগের সময় ফণী সংক্রান্ত তিনি যে তথ্য দিয়েছেন অত্যন্ত সঠিকভাবে দিয়েছেন। ওনার তথ্যের উপর ভিত্তি করে যে কাজ করেছি সেগুলোর সুফল আমরা পেয়েছি।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের পরিচালক বাংলানিউজকে বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের আবহাওয়া সংস্থা থেকে এ ধরনের প্রশংসা এরআগে আবহাওয়া অধিদপ্তর পেয়েছিল বলে আমার জানা নেই, অর্থাৎ এটাই প্রথম।

তিনি বলেন, আবহাওয়া অফিসের কর্মীরা দিনরাত কাজ করে যে পূর্বাভাস দিয়েছিল এবং মিডিয়ার মাধ্যমে তা প্রচারিত হয়ে মানুষ প্রস্তুতি গ্রহণ করেছিল।

Tweet about this on TwitterShare on Google+Print this pageShare on LinkedInShare on Tumblr





© 2014 Powered By Sangshadgallery24.com

Scroll to top