সোমবার, ২৭ মে ২০১৯ ইং, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ২২ রমযান ১৪৪০ হিজরী

You Are Here: Home » শীর্ষ খবর » কালবৈশাখীর ছোবলে ঢাকাসহ সারাদেশে ১০ জনের মৃত্যু

কালবৈশাখীর ছোবলে ঢাকাসহ সারাদেশে ১০ জনের মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদক:

জ্যৈষ্ঠের শুরুতেই কালবৈশাখীর ছোবলে রাজধানীসহ সারাদেশে প্রাণ গেল অন্তত ১০ জনের। এর মধ্যে ঢাকায় ৩ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। এ ছাড়া নওগাঁয় ৩ জন, চাঁপাইনবাবগঞ্জে ২ জন, রাজশাহী ও বগুড়ায় একজন করে প্রাণ হারিয়েছেন।

এদিকে ঝড়ের কবলে পড়ে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অভ্যন্তরীণ কয়েকটি ফ্লাইট জরুরি অবতরণ করে। কয়েকটি ফ্লাইটের সিডিউল পরিবর্তন করা হয়। অভ্যন্তরীণ রুটের কয়েকটি ফ্লাইট ঢাকায় অবতরণ করতে না পেরে চট্টগ্রামের শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করে। এছাড়া পাবনার ভাঙ্গুড়ায় গাছ উপড়ে রেললাইনে পড়ে ঢাকার সঙ্গে উত্তর ও দক্ষিণবঙ্গের ট্রেন চলাচল বন্ধ ছিল।

শুক্রবার সন্ধ্যায় আকস্মিক ঝড়ে ঢাকার বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের দক্ষিণ পাশের নামাজের প্যান্ডেল লণ্ডভণ্ড হয়ে যায়। ঝড়ে একজনের মৃত্যু ও আহত হয়েছেন অন্তত ২৫ জন। নিহত শফিকুল ইসলাম (৩৬) টায়ার কারখানায় কাজ করতেন।

ইসলামিক ফাউন্ডেশনের পরিচালক (মসজিদ ও মার্কেট বিভাগ) মুহাম্মদ মহীউদ্দিন মজুমদার বলেন, শুক্রবার সাধারণত মসজিদে অসংখ্য মুসল্লি থাকেন। ঝড়ের সময়ে প্যান্ডেলের নিচে শতাধিক মুসল্লি ছিলেন।

বায়তুল মোকাররম মসজিদের সিনিয়র পেশ ইমাম মুফতি মিজানুর রহমান জানান, রমজান মাস উপলক্ষে মসজিদের দক্ষিণ গেট এলাকার খালি জায়গায় বিশাল প্যান্ডেল তৈরি করা হয়েছিল। সেখানে রোজাদার মুসল্লিরা ইফতার ও নামাজ আদায় করেন। শুক্রবার ইফতার শেষে নামাজের প্রস্তুতির সময়ে হঠাৎ ঝড়ে প্যান্ডেলটি ভেঙে পড়ে। এতে অনেকেই নিচে চাপা পড়েন।

ফায়ার সার্ভিসের কেন্দ্রীয় নিয়ন্ত্রণ কক্ষের কর্মকর্তা রাসেল সিকদার বলেন, বায়তুল মোকাররমে দক্ষিণ গেটের প্যান্ডেল ভেঙে যাওয়ার খবরে তাদের দুটি উদ্ধারকারী দল সেখানে যায়। ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা কয়েকজনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠায়।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ পরিদর্শক মো. বাচ্চু মিয়া বলেন, রাত সাড়ে ৮টা পর্যন্ত ২৫ জন আহতকে হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। তাদের মধ্যে শফিক নামে একজন মারা যান। অন্য আহতদের কারও অবস্থাই গুরুতর নয়।

আহতদের মধ্যে সিটি এসবির এএসআই শরিফুল ইসলাম ছাড়াও রফিউজ্জামান, মনিরুল ইসলাম, আবদুল কুদ্দুস, জানে আলম, সাদিকুর রহমান, তারেক রহমান, মাসুদ, জহিরুল ইসলাম, সজীব, আওয়াল, বিপ্লব ও আমিন উল্লাহর নাম পাওয়া গেছে। আহত ২৫ জনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

শুক্রবার সকাল থেকেই ঢাকার আকাশ ছিল মেঘলা। রোদের সঙ্গে ছিল ভ্যাপসা গরম। সন্ধ্যা গড়াতেই হানা দেয় কালবৈশাখী। ঝড়ো হাওয়াসহ মাঝারি ধরনের বৃষ্টিপাত হয়েছে। সরকারি ছুটির দিন হওয়ায় ঝড়ো হাওয়া রাজধানীবাসীর স্বাভাবিক জীবনযাত্রায় দুর্ভোগের সৃষ্টি করেনি। বরং ভ্যাপসা গরমে অস্থির রাজধানীবাসীকে হঠাৎ বৃষ্টি স্বস্তি এনে দেয়। বৃষ্টির সঙ্গে আকস্মিক ঝড়ে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় গাছ উপড়ে পড়ে। ছিঁড়ে যায় বৈদ্যুতিক তার।

আবহাওয়াবিদ আব্দুল বারেক বলেন, এ সময়টায় কালবৈশাখী ঝড় স্বাভাবিক। এ ধরনের ঝড় জ্যৈষ্ঠ মাসে আরও কয়েকটি হতে পারে।

Tweet about this on TwitterShare on Google+Print this pageShare on LinkedInShare on Tumblr





Leave a Comment

You must be logged in to post a comment.

© 2014 Powered By Sangshadgallery24.com

Scroll to top