রবিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ইং, ৭ আশ্বিন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ২৪ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী

You Are Here: Home » অর্থনীতি-বাণিজ্য » ঋণসুদ ৯% না করলে এডিপির টাকা পাবে না ব্যাংক

ঋণসুদ ৯% না করলে এডিপির টাকা পাবে না ব্যাংক

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

 

ঋণের সুদ ৯ শতাংশে নামিয়ে আনার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলো। কিন্তু অনেক ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান তাদের সেই প্রতিশ্রুতি রাখেনি। সরকারের নিয়ম অনুযায়ী, এডিপির অর্থ আমানত হিসেবে ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানে ৬ শতাংশ সুদে গচ্ছিত রাখে। যেসব ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান প্রতিশ্রুতি রক্ষা করেনি তারা এডিপির অর্থ আমানত হিসেবে পাবে না।

সোমবার আর্থিক প্রতিষ্ঠান থেকে জারি করা এক প্রজ্ঞাপনে এ কথা বলা হয়েছে।

প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়েছে, স্বায়ত্তশাসিত ও আধা স্বায়ত্তশাসিত সংস্থার প্রকল্প বাস্তবায়নে এডিপির আওতায় সরকার থেকে প্রাপ্ত তহবিল এবং সরকারি, আধাসরকারি প্রতিষ্ঠান, স্বায়ত্তশাসিত ও আধা স্বায়ত্তশাসিত সংস্থার মোট নিজস্ব তহবিলের অর্থ বাংলাদেশ ব্যাংকিং ব্যবসায় নিয়োজিত সব ব্যাংকে অথবা এ বিভাগ কর্তৃক বর্ণিত অ-ব্যাংক আর্থিক প্রতিষ্ঠানে (এনবিএফআই) অথবা উভয় ধরনের প্রতিষ্ঠানে প্রযোজ্য ক্ষেত্রে স্পেশাল নোটিশ ডেপোজিট (এসএনডি), সঞ্চয়ী হিসাব স্থায়ী আমানতে (এফডিআর) সর্বোচ্চ ৬ শতাংশ হারে আমানত রাখা যাবে। তবে যেসব ব্যাংক বিগত ২/৫/২০১৮ তারিখে প্রদত্ত প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী ঋণের সুদের হার ৯ শতাংশে নামিয়ে আনতে ব্যর্থ হয়েছে তারা এ সুবিধা প্রাপ্য হবে না।

উল্লেখ্য, গত বছরের ২ মে সাবেক অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের কাছে ব্যাংক মালিকরা প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন তাঁরা ঋণের সুদের হার ৯ শতাংশে নামিয়ে আনবেন। কিন্তু সরকারি ব্যাংক ছাড়া বেশির ভাগ ব্যাংক এ প্রতিশ্রুতি রক্ষা করেনি। এর আগে গত বছরের ১ আগস্ট আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগ থেকে জারি করা এক প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়েছিল, বাংলাদেশে ব্যাংকিং ব্যবসায় নিয়োজিত বেসরকারি ব্যাংকগুলো অথবা ১৪টি অ-ব্যাংক আর্থিক প্রতিষ্ঠান (এনবিএফ) অথবা উভয় ক্ষেত্রে স্বায়ত্তশাসিত ও আধা স্বায়ত্তশাসিত সংস্থার প্রকল্প বাস্তবায়নের জন্য এডিপির আওতায় সরকার থেকে প্রাপ্ত তহবিলের সর্বোচ্চ ৫০ শতাংশ পর্যন্ত আমানত হিসেবে জমা রাখা যাবে।

Tweet about this on TwitterShare on Google+Print this pageShare on LinkedInShare on Tumblr





© 2014 Powered By Sangshadgallery24.com

Scroll to top