শনিবার, ৬ জুন ২০২০ ইং, ২৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১৫ শাওয়াল ১৪৪১ হিজরী

You Are Here: Home » ফটো গ্যালারী » মাশরাফি ভাইয়ের কাছে জিন আছে:তামিম

মাশরাফি ভাইয়ের কাছে জিন আছে:তামিম

স্পোর্টস গ্যালারী ডেস্কঃ

কদিন আগেই ওয়ানডে দলের নেতৃত্ব ছাড়া মাশরাফি বিন মুর্তজার অধিনায়কত্ব ছিল অনেকটাই অন্তর্দৃষ্টি নির্ভর। চটজলদি অপ্রথাগত কিছু চিন্তা কাজে লাগিয়ে নিয়মিতই সফল হতেন মাশরাফি। তামিম ইকবাল তো সবসময় মজা করে বলে থাকেন, ‘মাশরাফি ভাইয়ের কাছে জিন আছে।’

মাশরাফির পর ওয়ানডে দলের নেতৃত্ব পেয়েছেন তামিম। সাবেক অধিনায়কের দেখানো পথেই দলের নেতৃত্ব দিতে চান বাঁহাতি এ ওপেনার। কিন্তু সমস্যা হলো মাশরাফির ‘জিন’টা তামিম কোত্থেকে পাবেন?

সোমবার রাতে মাশরাফির সঙ্গে প্রায় এক ঘন্টা ফেসবুক লাইভে আড্ডা দেন তামিম। দুই তারকা ক্রিকেটারের আড্ডায় মাঠ ও মাঠের বাইরের নানা বিষয় উঠে আসে। আড্ডার ছলে নেতৃত্ব নিয়ে বেশ কিছুক্ষণ আলোচনা করেন তামিম-মাশরাফি। সেখানেই তামিমকে নেতৃত্বের মন্ত্রণা দেন মাশরাফি।

আড্ডায় মজা করে মাশরাফির জিনের খোঁজ করেন তামিম, ‘আমি সবসময় বিশ্বাস করতাম, আপনার সঙ্গে জিন বা কিছু একটা আছে। আপনাকে যদি মানা করি অফ স্পিনার না দিতে। আপনি ঠিকই অফ স্পিনার এনে উইকেট বের করেন। আমি হয়তো আপনার মতো অধিনায়ক হতে পারব, কিন্তু জিনটা কোত্থেকে আনব?’

গত বিপিএলে একই দল ঢাকা প্লাটুনের হয়ে খেলেছিলেন তামিম ও মাশরাফি। সেখানে বেশ কয়েকটি ম্যাচে জুয়া খেলে সফল হন মাশরাফি। জাতীয় দলে তো এমন উদাহরণ অহরহ। তামিম বলছিলেন, ‘বিপিএলে আপনি ফ্লেচারের সামনে মেহেদীকে বল করতে দেন। আমি মানা করছিলাম কিন্তু আপনি দিয়েছেন।এরপর দ্বিতীয় বলেই উইকেট পেল মেহেদী। রিয়াদ ভাইয়ের ক্ষেত্রেও এমন হয়েছে। আমি বাঁধা দেই, আপনি বলেন, “দাড়া দাড়া”। এখানে ভাইয়ের বিশেষ শক্তি আছে।’

মাশরাফি বলেছেন, নিজের সিদ্ধান্তের ওপর বিশ্বাস রেখেই সফল হয়েছেন তিনি। তামিমকেও নিজের সিদ্ধান্তে পূর্ণ বিশ্বাস রাখতে বলেছেন সাবেক এ অধিনায়ক, ‘তুই অধিনায়ক থাকলে হয়তো তখন অফ স্পিনার দিতি না, তাই তো? এটা তোর বিশেষত্ব। আমার মন বলছে, তাই অফ স্পিনার দিয়েছি, এটাই আমার বিশেষত্ব। নিজের ওপর বিশ্বাস রাখতে হবে। আমি নিশ্চিত যে তুই তোর বিশেষত্ব নিয়েই সফল হবি।’

আড্ডায় তামিম ২০০৭ বিশ্বকাপে ভারতের বিপক্ষে ম্যাচে বীরেন্দর শেবাগের আউটটি মনে করিয়ে দেন। মাশরাফি নাকি শেবাগকে লেংথ থেকে ভেতরে আসা বলে আউট করার কথা বলেছিলেন, তাও আবার ম্যাচের ১০ দিন আগে। ম্যাচের দিন ঠিকই শেবাগকে ভেতরে আসা বলে আউট করেন মাশরাফি। একবার তামিমকে মাশরাফি পরের সেঞ্চুরির জন্য আরও ৬ মাস অপেক্ষা করতে বলেন। ঠিক ৬ মাস ৩ দিন পর আরেকটি সেঞ্চুরি পেয়েছিলেন তামিম।

এ ছাড়া তামিমের ব্যাট নিয়ে মাশরাফির দুষ্টুমির গল্পও বেরিয়ে আসে আড্ডায়। ‘আমাকে ব্যাট দিলে তুই সেঞ্চুরি পাবি’-এই কথা বলে তামিমের দামি ব্যাট বিনা পয়সায় নিয়ে নেন মাশরাফি। মাশরাফিকে ব্যাট দিলে নাকি সত্যি সত্যিই সেঞ্চুরির দেখা পান তামিম!

আড্ডায় ২০১৯ বিশ্বকাপে বাংলাদেশ দলের ব্যর্থতা নিয়েও কথা বলেন জাতীয় দলের দুই তারকা ক্রিকেটার। তামিম ও মাশরাফির বিশ্বকাপটা খুব ভালো যায়নি। দুজনই মনে করেন, বিশ্বকাপে নিজেদের পারফরম্যান্সের তুলনায় ২৫ ভাগ ভালো খেললেই সেমিফাইনাল খেলত বাংলাদেশ। গত বিশ্বকাপে অবিশ্বাস্য পারফরম্যান্স করা সাকিব আল হাসানকে ক্রিকেট ইতিহাসের কিংবদন্তি ক্রিকেটার হিসেবেও আখ্যা দেন তামিম-মাশরাফি।

Tweet about this on TwitterShare on Google+Print this pageShare on LinkedInShare on Tumblr





© 2014 Powered By Sangshadgallery24.com

Scroll to top