বৃহস্পতিবার, ২২ এপ্রিল ২০২১ ইং, ৯ বৈশাখ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১১ রমযান ১৪৪২ হিজরী

You Are Here: Home » ফটো গ্যালারী » বৃহস্পতিবার বসছে অধিবেশন, করোনা নেগেটিভ সনদ থাকা বাধ্যতামূলক

বৃহস্পতিবার বসছে অধিবেশন, করোনা নেগেটিভ সনদ থাকা বাধ্যতামূলক

সংসদ ডেস্কঃ

করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন নেওয়ার পরও অনেকেই এই ভাইরাসে আক্রান্ত হচ্ছেন এবং মৃত্যুও ঘটছে। তাই ভ্যাকসিন নেওয়া থাকলেও সংসদ অধিবেশনে প্রবেশের ক্ষেত্রে করোনা নেগেটিভ সনদ থাকা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে।

আগামী বৃহস্পতিবার (১ এপ্রিল) শুরু হতে যাচ্ছে একাদশ জাতীয় সংসদের এই দ্বাদশ অধিবেশন। দেশে করোনাভাইরাস সংক্রমণ পরিস্থিতির ঊর্ধ্বগতির কারণে এই অধিবেশনেও কঠোরভাবে স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করা হবে।

সংসদ সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা জানান, সাধারণত কার্যউপদেষ্টা কমিটির বৈঠকে অধিবেশনের মেয়াদ ঠিক করা হলেও করোনা মহামারির কারণে গত পাঁচটি অধিবেশনের মতো এবারও ওই কমিটির বৈঠক হচ্ছে না। সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে আলাপ করে স্পিকার অধিবেশনের মেয়াদ ও কার্যসূচি চূড়ান্ত করবেন। তবে জুন মাসের প্রথম সপ্তাহে বাজেট অধিবেশন থাকায় এই অধিবেশন আগামী সপ্তাহেই শেষ হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো জানায়, ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ নেওয়ার পরও করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন সিলেট-৩ আসনের সংসদ সদস্য মাহমুদ-উস সামাদ। এছাড়া ভ্যাকসিন নিয়েও করোনা পজিটিভ হয়ে সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালের (সিএমএইচ) আইসিইউতে চিকিৎসাধীন আইন বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটির সভাপতি এবং সাবেক আইনমন্ত্রী অ্যাডভোকেট আব্দুল মতিন খসরু।

এদিকে, ভ্যাকসিন নেওয়ার প্রায় দুই মাস পর করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন হবিগঞ্জ-২ আসনের সংসদ সদস্য আব্দুল মজিদ খান, দেড় মাস পর আক্রান্ত হয়েছেন রাজবাড়ী-১ আসনের সংসদ সদস্য কাজী কেরামত আলী (৬৭), তার স্ত্রী রেবেকা সুলতানা সাজু (৬২) ও মেয়ে কানিজ ফাতিমা চৈতী (৪০)। সুনামগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য পীর ফজলুর রহমান মিসবাহ ও তার স্ত্রীও বর্তমানে করোনায় আক্রান্ত। এছাড়াও চলতি মাসে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন খুলনা-২ আসনের সংসদ সদস্য শেখ সালাহউদ্দিন জুয়েল, ফেনী-২ (সদর) আসনের সংসদ সদস্য নিজাম উদ্দিন হাজারী ও মৌলভীবাজার-২ (কুলাউড়া) আসনের সংসদ সদস্য সুলতান মোহাম্মদ মনসুর আহমদ।

এ পরিস্থিতি বিবেচনায় নিয়েই চলতি অধিবেশনে যোগ দেওয়ার জন্য করোনা নেগেটিভ সনদ বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। সংসদ সচিবালয়ের কর্মকর্তারা বলছেন, অধিবেশন চলাকালে সংসদ ভবনে প্রবেশের ক্ষেত্রে করোনা নেগেটিভ সনদ বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। আর অধিবেশন কক্ষে প্রবেশের ক্ষেত্রে করোনা নেগেটিভ সনদের মেয়াদ থাকবে ৪৮ ঘণ্টা। এরপর আবারও নমুনা পরীক্ষা করাতে হবে। করোনা ভ্যাকসিন যারা নিয়েছেন, নমুনা পরীক্ষা করাতে হবে তাদেরও। ভ্যাকসিন নেওয়ার পরও করোনায় আক্রান্ত হয়ে সিলেট-৩ আসনের সংসদ সদস্য মাহমুদ-উস সামাদ চৌধুরীর করোনায় মৃত্যু এবং অনেকেই আক্রান্ত হওয়ায় এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

জাতীয় সংসদের হুইপ পঞ্চানন বিশ্বাস জানান, গত পাঁচটি অধিবেশনের মতো এবারের অধিবেশনও স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে পরিচালনা করা হবে। প্রতিটি কার্যদিবসে ৭০ থেকে ৮০ জন সংসদ সদস্যের উপস্থিতি নিশ্চিত করা হবে। তবে নতুন নির্দেশনার কারণে অধিবেশনে যোগ দিতে একাধিকবার নমুনা পরীক্ষার প্রয়োজন পড়বে।

পঞ্চানন বিশ্বাস আরও জানান, করোনাভাইরাসের ঝুঁকি এড়াতে আগের অধিবেশনগুলোর মতো এই অধিবেশনেও মাঝে ফাঁকা রেখে সংসদ সদস্যদের আসন বিন্যাস করা হবে। সংসদ অধিবেশন চলাকালে দায়িত্বরত কর্মকর্তা-কর্মচারীদেরও করোনাভাইরাস পরীক্ষা করতে হবে।

এদিকে, সংসদ সদস্যসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা-কর্মচারীদের করোনাভাইরাসের নমুনা পরীক্ষার জন্য নমুনা সংগ্রহের ব্যবস্থা করা হয়েছে সংসদ মেডিকেল সেন্টারে। তবে সেখানে নমুনা সংগ্রহে চরম অব্যবস্থাপনা চলছে বলে অভিযোগ রয়েছে সংশ্লিষ্টদের।

Tweet about this on TwitterShare on Google+Print this pageShare on LinkedInShare on Tumblr





© 2014 Powered By Sangshadgallery24.com

Scroll to top